খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে বিএনপির ১২ দিনের কর্মসূচি ঘোষণা

খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে বিএনপির ১২ দিনের  কর্মসূচি ঘোষণা

ফাইল ছবি।

বিএনপির চেয়ারপারসন কারাবন্দি বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে ১২ দিনের কর্মসূচি ঘোষণা করেছে বিএনপি। কর্মসূচিগুলো পালিত হবে দলটির অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের উদ্যোগে। বৃহস্পতিবার (১২ সেপ্টেম্বর) দুপুরে নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে যৌথসভা শেষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলন থেকে এসব কর্মসূচি ঘোষণা করেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।
কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে— আগামী ১৫ সেপ্টেম্বর জাতীয়তাবাদী মৎস্যজীবী দলের উদ্যোগে মানববন্ধন, ১৬ সেপ্টেম্বর জাতীয়তাবাদী মুক্তিযোদ্ধা দলের উদ্যোগে মানববন্ধন, ১৭ সেপ্টেম্বর জাতীয়তাবাদী তাঁতী দলের উদ্যোগে মানববন্ধন, ১৮ সেপ্টেম্বর, এ্যাসোসিয়েশন অব ইঞ্জিনিয়ার্স-বাংলাদেশ (এইবি) এর উদ্যোগে মানববন্ধন, ১৯ সেপ্টেম্বর ডক্টর এ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ড্যাব) এর উদ্যোগে মানববন্ধন, ২০ সেপ্টেম্বর জাতীয়তাবাদী যুবদলের উদ্যোগে দেশব্যাপী মানববন্ধন, ২১ সেপ্টেম্বর জাতীয়তাবাদী ওলামা দলের উদ্যোগে মানববন্ধন, ২২ সেপ্টেম্বর জাতীয়তাবাদী মহিলা দলের উদ্যোগে দেশব্যাপী মানববন্ধন, ২৪ সেপ্টেম্বর জাতীয়তাবাদী কৃষক দলের উদ্যোগ মানববন্ধন, ২৫ সেপ্টেম্বর জাতীয়তাবাদী শ্রমিক দলের উদ্যোগে মানববন্ধন, ২৭ সেপ্টেম্বর এগ্রিকালচারিস্ট এ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (এ্যাব) এর উদ্যোগে মানববন্ধন এবং ২৮ সেপ্টেম্বর জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দলের উদ্যোগে মানববন্ধন।

সংবাদ সম্মেলনে মির্জা ফখরুল বলেন, দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া গভীর রাজনৈতিক ষড়যন্ত্রের শিকার। কারণ তাকে বন্দী করা হলে শাসকগোষ্ঠীর লুটপাট করতে সুবিধা। কেননা বেগম খালেদা জিয়া দেশের স্বাধীনতা সার্বভৌমত্ব রক্ষার প্রতীক।

তিনি বলেন, দেশনেত্রীর জামিন দেয়া হচ্ছে না। তিনি রাজনৈতিক প্রতিহিংসার শিকার। সরকার সচেতনভাবে সংবিধান লংঘন করে দেশ শাসন করছে। একই ধরনের মামলায় অন্য অনেকে জামিন পেলেও কেবল দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে জামিন দেয়া হচ্ছে না। গণতন্ত্রের সব প্রতিষ্ঠানগুলো ধ্বংস করেছে, শুধু ভিন্ন লেবাসে বাকশাল শাসন ব্যবস্থা কায়েম করতে।
এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন- বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন, সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক মিলন, যুবদলের সাধারণ সম্পাদক সুলতান সালাউদ্দিন টুকু ও ওলামা দলের সভাপতি মাওলানা শাহ নেছার উদ্দীন প্রমুখ।

 

 

ad