মোগাদিসুতে জাতিসঙ্ঘ দূতকে লক্ষ করে বোমা হামলায় ৬ জন নিহত

মোগাদিসুতে জাতিসঙ্ঘ দূতকে লক্ষ করে বোমা হামলায় ৬ জন নিহত

ছবি সংগৃহিত।

সোমালিয়ার রাজধানীতে বুধবার বোমা বিস্ফোরণে ছয়জন নিহত ও মোগাদিসুর মেয়র আহত হয়েছেন। মেয়রের দফতরে এ ঘটনা ঘটে।

জাতিসঙ্ঘের এক দূতকে লক্ষ্য করে এ হামলা চালানো হয় বলে আল-শাবাব বিদ্রোহীরা দাবি করেছে। খবর এএফপি’র।

মিশনের টুইটার অ্যাকাউন্টে বলা হয়, জাতিসঙ্ঘের বিশেষ দূত জেমস সোয়ান মোগাদিসুর মেয়র আব্দিররাহহমা ওমর ওসমানের সাথে সাক্ষাত করতে গিয়েছিলেন। বানাদির জেলার সদর দফতর ত্যাগ করার একেবারে আগ মুহূর্তে এ বিস্ফোরণ ঘটানো হয়।

তথ্যমন্ত্রী মোহাম্মাদ আব্দি হায়ির মারিয়ি সাংবাদিকদের বলেন, ‘বুধবার দুপুরের ওই সন্ত্রাসী হামলায় ছয়জন নিহত হয়েছেন। এদের মধ্যে দু’জন জেলা কমিশনার ও তিনজন পরিচালক রয়েছেন।’

বিস্ফোরণে মেয়রসহ আরো পাঁচজন আহত হয়েছেন। তাদের চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

আল-কায়েদা সংশ্লিষ্ট আল-শাবাব বিদ্রোহী গ্রুপ ‘ভালো প্রস্তুতি নিয়ে চালানো এ হামলার’ দায়িত্ব স্বীকার করে বলেছে, তারা সোয়ানকে লক্ষ্য করে এ হামলা চালিয়েছিল।

নাম প্রকাশ করতে অনিচ্ছুক এক নিরাপত্তা সূত্র জানায়, কর্মকর্তাদের বৈঠক চলার সময় আত্মঘাতী এক বোমা হামলাকারী সভাকক্ষে ঢুকে পড়ে বোমার বিস্ফোরণ ঘটায়।

উপ-মেয়র মোহাম্মাদ আব্দুলাহি তুলাহ সরকারি বেতার কেন্দ্র মুখদিসু’কে বলেন, ‘বিস্ফোরণে মেয়র আহত হয়েছেন এবং তাকে বর্তমানে চিকিৎসা দেয় হচ্ছে। এতে মোগাদিসু জেলার কয়েকজন কমিশনার আহত হন।’

নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা ঘটনাটি তদন্ত করে দেখছে।

এদিকে, এক বিবৃতিতে শাবাব জানিয়েছে, তারা ‘অনেক শত্রুকে হত্যা করেছে।’

মোগাদিসুতে প্রায় নিয়মিতভাবে শাবাব গ্রুপের সদস্যরা হামলা চালায়। গ্রুপটি সোমালিয়া সরকারকে উৎখাতে এক দশকের বেশি সময় ধরে লড়াই করে আসছে।

মোগাদিসু নগরীতে সোমবার এক গাড়ি বোমা হামলায় ১৭ জন নিহত ২৪ জনের বেশি আহত হন।

 

ad