সরকার শুধু ডেঙ্গু নয় সবক্ষেত্রে ব্যর্থতার প্রমাণ দিয়েছে: ড. মোশাররফ হোসেন

সরকার শুধু ডেঙ্গু নয় সবক্ষেত্রে ব্যর্থতার প্রমাণ দিয়েছে: ড. মোশাররফ হোসেন

ছবি সংগৃহিত।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেছেন, বর্তমান সরকার শুধু ডেঙ্গু নয় সবক্ষেত্রে ব্যর্থতার প্রমাণ দিয়েছে। অবিলম্বে তাদের পদত্যাগ করে নির্দলীয় সরকারের অধীনে সুষ্ঠু নির্বাচন দিতে হবে। কেননা অনির্বাচিত সরকার দিয়ে সমস্যার সমাধান হবে না। বুধবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবের এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

‘ডেঙ্গু রোগ, বর্তমান প্রেক্ষাপট: আমাদের করণীয়’শীর্ষক এই আলোচনা সভার আয়োজন করে ডক্টরস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (ড্যাব)।প্রেসক্লাবের দোতলায় জহুর হোসেন মিলনায়তনে এই সভা হয়। পরে ডেঙ্গু রোগ মোকাবেলায় সচেতনতা বৃদ্ধির জন্য প্রেসক্লাবের সামনের রাস্তায় একটি শোভাযাত্রা ও লিফলেট বিতরণ করা হয়।

ড্যাবের সভাপতি অধ্যাপক ডাঃ হারুন আল রশিদের সভাপতিত্বে সভায় আরো বক্তব্য দেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শওকত মাহমুদ, ডিইউজের সভাপতি কাদের গণি চৌধুরী ড্যাবের নেতৃবৃন্দ।

ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেন, ডেঙ্গু রোগ ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে। বহু লোক মারা গেছেন। ডেঙ্গু যে মহামারী আকার ধারণ করেছে এটা সবাই স্বীকার করেছে। অর্থমন্ত্রী নিজেও ডেঙ্গু রোগে আক্রান্ত হয়েছিলেন। ফলে তিনি সংসদে বাজেট ঘোষণা করতে পারেননি। ডেঙ্গু রোগ মোকাবেলায় প্রধান দায়িত্ব হচ্ছে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের। তার আগে সিটি কর্পোরেশনের দায়িত্ব অবশ্যই রয়েছে। ডেঙ্গু রোগ প্রতিরোধ এবং মোকাবিলায় জরুরি পদক্ষেপ গ্রহণ করতে হবে। মশা নিধনে কার্যকর ওষুধ ব্যবহার করতে হবে। স্বাস্থ্য সেন্টারগুলোকে ডেঙ্গু কেন্দ্র ঘোষণা করার দাবি জানাই।

ডেঙ্গু রোগ নিয়ে সরকারের মন্ত্রী, মেয়র ও আমলাদের মন্তব্যের সমালোচনা করে তিনি বলেন, আমাদের শাসনামলে ডেঙ্গু রোগ হয়েছিল। কিন্তু আমরা সমন্বিতভাবে তো মোকাবিলা করেছিলাম। সেসময় ঢাকার একক সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ছিলেন সাদেক হোসেন খোকা। ডেঙ্গু রোগ মোকাবেলায় সচেতনতা বৃদ্ধির জন্য সেমিনার ও আলোচনা সভা করেছিলাম। এডিস মশা নিয়ন্ত্রণে জনসচেতনতা সৃষ্টি করেছিলাম। তিনি বলেন, এডিস মশার বিস্তার রোধ করতে হবে। এজন্য সবাইকে বাসা বাড়ি পরিষ্কার করতে হবে। সচেতন থাকতে হবে। সরকার ডেঙ্গু মোকাবেলায় ব্যর্থ হয়েছে। সরকার ও দুই মেয়রকে পদত্যাগ করতে হবে। এটা আমাদের দলীয় দাবি। কেননা ডেঙ্গু প্রতিরোধ এবং এডিস মশার বিস্তার রোধ করতে তারা ব্যর্থ হয়েছে।

 

ad