বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় ভিসির পদত্যাগ দাবি

বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় ভিসির পদত্যাগ দাবি

ছবি সংগৃহিত।

  

আন্দোলনের সপ্তম দিনে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি ড. এস এম ইমামুল হকের পদত্যাগ দাবি করে জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী বরাবর ২৫টি অভিযোগ উল্লেখ করে স্মারকলিপি দিয়েছেন শিক্ষার্থীরা। আগামী ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে ভিসি পদত্যাগ না করলে শিক্ষার্থীরা আমরণ অনশনসহ কঠোর আন্দোলনের ঘোষণা দিয়ে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনের সড়কে প্রায় এক ঘণ্টা বিক্ষোভ করেন।

 

স্মারকলিপিতে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি ড. এস এম ইমামুল হকের অপসারণ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের নানাবিধ সমস্যা সমাধানের কথা উল্লেখ করা হয়েছে। এছাড়াও স্মারকলিপিতে জাতীয় দিবসগুলো (১৬ ডিসেম্বর, ২৬ মার্চ)’র অনুষ্ঠানে শিক্ষার্থীদের সংযুক্ত না করা এবং এর প্রতিবাদ করায় শিক্ষার্থীদের রাজাকারের বাচ্চা বলে কটূক্তি করার বিষয়টিও উল্লেখ করা হয়েছে। স্মারকলিপিতে ২৫টি পয়েন্টে ভিসির বিরুদ্ধে বিভিন্ন অভিযোগ নির্দিষ্ট আকারে তুলে ধরা হয়েছে। যার মধ্যে অর্থ আত্মসাৎ, অবৈধভাবে পদোন্নতি, নিয়োগ বাণিজ্য, শিক্ষার্থীদের ওপর জরিমানাসহ বিভিন্ন অযুহাতে অন্যায়ভাবে শাস্তি দেওয়া, বিশ্ববিদ্যালয়ে সীমানা প্রাচীর ও সবুজায়ন না করা ইত্যাদি।

স্মারকলিপি গ্রহণ করে জেলা প্রশাসক এস এম অজিয়র রহমান শিক্ষার্থীদের বলেন, বিষয়টি নিয়ে এরই মধ্যে মৌখিকভাবে বিভাগীয় কমিশনার, সিটি কর্পোরেশনের মেয়রসহ উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সাথে আলোচনা করা হয়েছে। আশা করি, সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ দ্রুত সময়ের মধ্যে সকল সমস্যার সমাধান করবেন।

ad